এইমাত্র পাওয়া

  • কাপ জিতেই ছাড়ব, জন্মদিনে শপথ মেসির
  • প্রাথমিকে ১২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি জুলাইয়ে, থাকছে ৬০% নারী কোটা
  • ঝালকাঠিতে সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন ধ্রুবতারা’র দোয়া ও ইফতার অনুষ্ঠান
  • ঝিনাইদহে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সেমিনার
  • দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে
  • ফাঁটা পায়ের যত্নে কিছু পরামর্শ !!
  • ডায়াবেটিস রোগীরা কি রোজা রাখতে পারবে?
  • ওজন কমাবে কালো জিরা
  • হলুদ দাঁতের সমস্যা সমাধান করুন নিমিষেই
  • কিশিমিশের পানি খেলে যে উপকার পাবেন
Updated

খবর লাইভ

রাইস কুকারে রান্না করা যায় এমন ৬টি পদের রন্ধন প্রনালী

12 November 2017 19:57:54 512594 ভোট:5/5 1 Comments
Star ActiveStar ActiveStar ActiveStar ActiveStar Active
রাইস কুকারে রান্না করা যায় এমন ৬টি পদের রন্ধন প্রনালী

সরিষা ইলিশ
যা লাগবে : ইলিশ ৫০০ গ্রাম (পাঁচ-ছয় পিস), সরিষা তিন টেবিল চামচ, কাঁচামরিচ তিনটি, কাঁচামরিচ ফালি দুইটি (ইচ্ছানুযায়ী), পেঁয়াজবাটা দুই টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া সিকি চা চামচ, লবণ স্বাদমতো, লেবুর রস এক টেবিল চামচ, সরিষার তেল দুই টেবিল চামচ।
যেভাবে করবেন : সরিষা ও কাঁচামরিচ ধুয়ে দুই টেবিল চামচ পানি দিয়ে ব্লেন্ড করে নিন। এবার ছাকনিতে ছেকে ক্বাথ টুকু নিন। মাছ ছাড়া সব উপকরণ একসঙ্গে মেখে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। মশলার মিশ্রণে মাছ মেখে ম্যারিনেট করুন ২০-২৫ মিনিট। রাইস কুকারের ননস্টিক বোলে মাছ সাজিয়ে ঢাকনা বন্ধ করে ১০-২৫ মিনিট রান্না করুন। রান্না শেষে গরম গরম পরিবেশন করুন।

কাশ্মিরী পোলাও
যা লাগবে : বাসমতি চাল ৫০০ গ্রাম, পানি এক লিটার, চিনি এক চা চামচ, আদাবাটা এক চা চামচ, রসুনবাটা এক চা চামচ, পেঁয়াজ বেরেস্তা দুই চা চামচ, গরম মশলা গুঁড়া আধা চা চামচ, এলাচ তিনটি, দারুচিনি দুইটি, তেজপাতা দুইটি, স্টার অ্যানিসড একটি, লবঙ্গ তিন-চারটি। ফেলেন সিড সিকি চা চামচ, গুঁড়াদুধ এক টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো, ঘি আধা কাপ, ফ্রেশক্রিম আধা কাপ, জাফরান দুই চা চামচ (এক টেবিল চামচ দুধে ভেজানো), আনারস কিউব আধা কাপ, লাল সবুজ আপেল কিউব আধা কাপ, আনার দানা আধা কাপ, কিশমিশ-কাজু-পেস্তা-কাঠবাদাম কুচি দুই টেবিল চামচ, কাঁচামরিচ ছয়-সাতটি, পুদিনাপাতা এক মুঠো, কেওড়া এক টেবিল চামচ, গোলাপজল এক টেবিল চামচ।
যেভাবে করবেন : চাল ধুয়ে ৩০ মিনিট ভিজিয়ে পানি ঝরিয়ে নিন, রাইস কুকারের ননস্টিক বোলে চাল, ঘি, পেঁয়াজ বেরেস্তা, আদা-রসুনবাটা, এলাচ, দারুচিনি, তেজপাতা, লবঙ্গ, স্টার অ্যানিসড ফেনেল সিড একত্রে মিশিয়ে পাঁচ মিনিট রান্না করুন। পাঁচ মিনিট পর চালের দ্বিগুণ পানি, স্বাদমতো লবণ, গুঁড়াদুধ, কাঁচামরিচ দিয়ে নেড়ে ঢেকে রান্না করুন ১০ মিনিট। ১০ মিনিট পর চিনি কাঁচামরিচ দিয়ে দিন। রাইস কুকার কিপওয়ার্মমুডে এলে ঢাকনা খুলে চার ভাগের তিনভাগ পোলাও তুলে নিন। সব ফল কাটা, কিশমিশ, বাদাম কুচি, পুদিনাপাতা, গরম মশলা গুঁড়া, একত্রে মেখে সিকি ভাগ তুলে রেখে পোলাও ও ফল বাদামের মিশ্রণ স্তরে স্তরে সাজিয়ে দিন। এ সময়ে প্রতিটি স্তরে ফ্রেশক্রিমও দিন। ঢাকনা বন্ধ করে ১০ মিনিট কিপওয়ার্ম মুডে রাখুন। পরিবেশন পাত্রে ঢেলে উপরে অবশিষ্ট ফলের মিশ্রণ দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

পাঙ্গাশ মাছের মেথিকারী
যা লাগবে : পাঙ্গাশ মাছের টুকরা আটটি, পানি ঝরানো টক দই সিকি কাপ, পেঁয়াজবাটা সিকি কাপ, টম্যাটো পিউরি দুই টেবিল চামচ, বেরেস্তাবাটা দুই টেবিল চামচ, আদাবাটা ও রসুনবাটা এক চামচ করে, জিরাবাটা আধা চামচ, মেথি গুঁড়া সিকি চামচ, চিনি এক চা চামচ, মরিচ গুঁড়া এক চা চামচ (ইচ্ছানুযায়ী), হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ, তেল সিকি কাপ, ধনে গুঁড়া এক চা চামচ, গরম পানি আধা কাপ, টম্যাটো কিউব এক কাপ, কাঁচামরিচ তিন-চারটি, কাসুরি মেথি এক চা চামচ, লবণ স্বাদমতো।
যেভাবে করবেন : মাছ ধুয়ে পানি নিংড়ে নিন। তেল, পানি বেরেস্তাবাটা, টম্যাটো কিউব, কাঁচামরিচ ও কাসুরি মেথি ছাড়া মাছ ও অন্যান্য উপকরণ একসঙ্গে খুব ভালোভাবে মেখে ম্যারিনেট করুন ২০-২৫ মিনিট।
ননস্টিক বোলে তেল দিন। এবার ম্যারিনেট করা মাছ ঢেলে রান্না করুন ১০ মিনিট অথবা কষা কষা না হওয়া পর্যন্ত এবার চিনি দিন।
আধা কাপ গরম পানি দিয়ে টম্যাটো কিউব বেরেস্তাবাটা ও কাঁচামরিচ দিয়ে দিন। এবার আট-দশ মিনিট রান্না করুন।
কাসুরি মেথি দিয়ে পাঁচ মিনিট কিপওয়ার্মে রেখে গরম গরম পরিবেশন করুন।

মোরগ মোসাল্লাম
যা লাগবে : মুরগি ৮০০ গ্রাম ওজনের একটি, টকদই সিকি কাপ, পেঁয়াজবাটা দুই টেবিল চামচ, মাওয়া সিকি কাপ, বেরেস্তা সিকি কাপ, আদাবাটা এক টেবিল চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চামচ, রসুনবাটা এক চা চামচ, ধনেবাটা এক চা চামচ, পোস্তদানাবাটা এক টেবিল চামচ, জায়ফল-জয়ত্রী কাবাবচিনি গুঁড়া আধা চা চামচ, গরম মশলা গুঁড়া আধা চামচ, লেবুর রস এক চা চামচ, চিনি এক চা চামচ, কেওড়া, গোলাপজল দুই চা চামচ, কিশমিশ, বাদামকুচি এক টেবিল চামচ, ঘি/তেল আধা কাপ, গোটা গরম মশলা পরিমাণ মতো, জর্দার রং সামান্য, ডিম একটা, কাঁচামরিচ পাঁচ-ছয়টি।
যেভাবে করবেন : মুরগি পরিষ্কার করে ধুয়ে কেটে সব বাটা মশলা, লবণ ও টকদই গোলমরিচ গুঁড়া দিয়ে মেখে ম্যারিনেট করুন দুই ঘণ্টা। দেশী মুরগি হলে ৪-৫ ঘণ্টা। সব গুঁড়া মশলা, কিশমিশ, বাদাম ও বেরেস্তা একত্রে মেখে নিন। ডিম সিদ্ধ করে রং মেখে তেলে হালকা ভেজে নিন।
কিছু বেরেস্তার মিশ্রণ ডিম মুরগির পেটের ভেতর ঢুকিয়ে সেলাই করে দিন। চাইলে এর সঙ্গে পোলাও বা ফ্রায়েড রাইসও দিতে পারেন। মুরগির পা বেঁধে দিন। রাইস কুকারের বোলে ঘি দিয়ে গোটা গরম মশলা দিন। মুরগির গা থেকে মশলা ঝরিয়ে দিন। মুরগি চারদিক ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে পাঁচ মিনিট ভেজে নিন। এবার মুরগির মাখানো মশলা রাইস কুকারে দিয়ে দিন। ভালো করে নেড়ে রান্না করুন ১৫ মিনিট। মাঝে একবার উল্টে দিন। ১৫ মিনিটে মুরগি সিদ্ধ না হলে এবং মশলা শুকিয়ে গেলে আধা কাপ গরম পানি দিয়ে রান্না করুন। এবার চিনি লেবুর রস, কেওড়া, গোলাপজল, বেরেস্তার মিশ্রণ, মাওয়া দিয়ে পাঁচ মিনিট কিপ ওয়ার্মে রেখে গরম গরম পরিবেশন করুন।

ভেজিটেবল খিচুড়ি
যা লাগবে : পোলাওয়ের চাল ৫০০ গ্রাম, মুগডাল ২৫০ গ্রাম, পেঁয়াজ কুচি চার টেবিল চামচ, পেঁয়াজ বেরেস্তা দুই টেবিল চামচ, আদাবাটা এক টেবিল চামচ, রসুনবাটা এক টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া এক চা চামচ, জিরা গুঁড়া এক চা চামচ। এলাচ চারটি, দারুচিনি দুই টুকরা, তেজপাতা দুইটি, কাঁচামরিচ ফালি ৭-৮টি, ধনেপাতা কুচি আধা কাপ, ফুলকপি, গাজর, টম্যাটো, ব্রকলি, বরবটি, মটরশুঁটি দুই কাপ, (ছোট টুকরা), গরম মশলা গুঁড়া এক চা চামচ, লবণ স্বাদ মতো, তেল পৌনে এক কাপ, ঘি দুই টেবিল চামচ, গরম পানি এক লিটার।
যেভাবে করবেন : মুগডাল ভেজে পানিতে ভিজিয়ে রাখুন দুই ঘণ্টা। চাল ধুয়ে ২০ মিনিট ভিজিয়ে পানি ছেকে নিন। রাইস কুকারের ননস্টিক বোলে তেল, পেঁয়াজ কুচি, এলাচি, দারুচিনি, তেজপাতা দিয়ে দুই মিনিট রান্না করে আদাবাটা, রসুনবাটা, হলুদ গুঁড়া, সামান্য লবণ দিয়ে দুই মিনিট ভুনে সব সবজি দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিন। পাঁচ মিনিট রান্না করুন। রাইস কুকার থেকে সবজিগুলো তুলে নিয়ে চাল ও ডাল দিয়ে পাঁচ মিনিট ভুনে চালের দ্বিগুণ পানি কাঁচামরিচ ফালি, আগে থেকে ভুনে রাখা সবজি, গরম মশলা, জিরা গুঁড়া ও স্বাদমতো লবণ দিয়ে রান্না করুন ১৫-২০ মিনিট। পেঁয়াজ বেরেস্তা, ঘি, ধনেপাতা কুচি ছড়িয়ে দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

শাহী জর্দা
যা লাগবে : বাসমতি চাল এক কাপ, পানি দুই কাপ, চিনি এক কাপ, ঘি তিন টেবিল চামচ, পেস্তা-কাঠবাদাম কুচি দুই টেবিল চামচ, কিশমিশ এক টেবিল চামচ, মোরব্বা কুচি আধা কাপ, গুঁড়াদুধ দুই টেবিল চামচ, মাওয়া দুই টেবিল চামচ, গোলাপজল দুই চা চামচ, দুধের সর বা ফ্রেশক্রিম দুই টেবিল চামচ, জাফরান এক চা চামচ, জাফরান রং পরিমাণমতো, এলাচ তিন-চারটি, দারুচিনি দুই টুকরা, তরল দুধ এক টেবিল চামচ।
যেভাবে করবেন : চাল ধুয়ে ৩০ মিনিট ভিজিয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। রাইস কুকারের ননস্টিক বোলে চাল, এলাচ, দারুচিনি, রং ও চালের দ্বিগুণ পানি দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিন। এবার কুকমুডে দিয়ে রাইস কুকার অন করুন। রাইস কুকওয়ার্ম পজিশনে যখন আসবে তখন ঢাকনা খুলুন। এবার চিনি, ঘি, গোলাপজল, গুঁড়াদুধ, মাওয়া তরল দুধে ভেজানো জাফরান, অর্ধেক বাদাম কুচি ও কিশমিশ মোরব্বা দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিন। কুকমুডে রান্না করুন, রাইস কুকার কিপওয়ার্ম মুডে চলে এলে এভাবে পাঁচ মিনিট রেখে ঢাকনা খুলে দিন। দুধের সর বা ফ্রেশক্রিম, অবশিষ্ট কিশমিশ, পেস্তা বাদাম কুচি, ছোট মিষ্টি দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

Loading...
advertisement
সর্বশেষ সংবাদ
এ বিভাগের সর্বশেষ