এইমাত্র পাওয়া

  • কাপ জিতেই ছাড়ব, জন্মদিনে শপথ মেসির
  • প্রাথমিকে ১২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি জুলাইয়ে, থাকছে ৬০% নারী কোটা
  • ঝালকাঠিতে সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন ধ্রুবতারা’র দোয়া ও ইফতার অনুষ্ঠান
  • ঝিনাইদহে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সেমিনার
  • দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে
  • ফাঁটা পায়ের যত্নে কিছু পরামর্শ !!
  • ডায়াবেটিস রোগীরা কি রোজা রাখতে পারবে?
  • ওজন কমাবে কালো জিরা
  • হলুদ দাঁতের সমস্যা সমাধান করুন নিমিষেই
  • কিশিমিশের পানি খেলে যে উপকার পাবেন
Updated

খবর লাইভ

ব্রা কে বলুন না, ব্রা পরলে হতে পারে ক্যান্সার!

13 October 2016 07:10:07 AM 403820753 ভোট:5/5 4 Comments
Star ActiveStar ActiveStar ActiveStar ActiveStar Active
 ব্রা কে বলুন না, ব্রা পরলে হতে পারে ক্যান্সার!

আমাদের নারীরা ব্রা পরে কেন? উত্তর- তার মা পরেন, বড় আপু পরেন, তার বান্ধবী পরেন। অনেকটা দেখাদেখিতে শিখে নারীরা ব্রা পরেন। পরতে হয় তাই পরেন। এই হলো একটি কারণ। ব্রা পরার পেছনে আরেকটি কারণ লজ্জা। কারণ নারী ছোটবেলা থেকে শিখেছে সে নারী, তার ভেতর কিছু লোভনীয় অংশ আছে। সুতরাং সেগুলো ঢেকে রাখা দরকার।

নারী বাইরে যাবে, অফিসে যাবে, আদালতে যাবে, বাসে উঠবে সুতরাং নিজের বিশেষ এই অংশটুকু ঢেকেঢুকে না রাখলেই নয়। বিশেষ এই অংশটি ঢাকার নারীর রয়েছে অভিনব পদ্ধতি। প্রথমে ওড়না, জামা রয়েছে, জামার নিচে পাতলা কাপড় রয়েছে তারপর থাকে ব্রা।

নিজের লজ্জা ঢাকার অভিনব এই পদ্ধতির জন্য নারী কিন্তু নিজেই নিজের ক্ষতি করছে। নারী স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়িয়ে দিচ্ছেন। কেননা যে সব কারণে স্তন ক্যান্সার হতে পারে তার মধ্যে একটি কারণ এই ব্রার দীর্ঘমেয়াদী ব্যবহার। ব্রা ব্যবহার আপনার পেশিকে টেনে ধরে, রক্ত চলাচল ব্যাহত করে, পেশিগুলোর স্বাভাবিক বৃদ্ধিতে বাধা দেয়।

নারীর জন্য স্তন ক্যান্সার ভয়াবহ অশতি সংকেত। নারী তার এই অশনি সংকেত বয়ে বেড়ান বছরের পর বছর। ওই যে লজ্জা। নারী যে লজ্জায় ব্রা পরেন আবার সেই লজ্জাতেই রোগ পুষে রাখেন।

কিছুটা পরিসংখ্যান দিয়ে রাখি। আমাদের দেশের প্রায় ২৪ ভাগ নারী স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকিতে, ক্যান্সারে প্রতিবছর মারা যান ১৭ হাজার নারী। এর মধ্যে ৪০ থেকে ৫০ বছরের মহিলা সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়। এ বয়সের মহিলাদের মধ্যে প্রায় ৩৩ ভাগ স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত। বিবাহিত মহিলারা আক্রান্ত হয় ৮৬ ভাগ, গৃহিনী ৮০ ভাগ এবং একের অধিক সন্তানের মা ৫০ ভাগ। এ ছাড়া স্বল্প আয়ের মহিলাদের ৪৫ ভাগ ক্যান্সারের প্রবণতা রয়েছে।

আগেই বলে রেখেছি ব্রা কিন্তু ক্যান্সার রোগের অন্যতম কারণ হতে পারে। ফরাসি গবেষকরা বিষয়টিতে শঙ্কা প্রকাশ করে জানিয়েছেন ব্রা পরিধান না করলে স্তনের আশপাশের পেশীগুলো শক্তিশালী হয়। সেই সাথে প্রতিবছর স্তনবৃন্তের পরিমাণ ৭ মিলিমিটার করে বাড়ে।

তারা বলছেন, ব্রা ব্যবহার বন্ধ করলে স্তন হয়ে ওঠে স্বাভাবিক সৌন্দর্যময়। পেশীগুলো নিজেরাই স্তনের ভার বহনে সক্ষম হয়। অপরদিকে ব্রা এর ব্যবহার স্তনের টিস্যুগুলোকে জন্মাতে দেয় না। টিস্যুগুলোকে নির্জীব করে তোলে এবং স্তন ধীরে ধীরে তার আকর্ষণীয়তা হারিয়ে ফেলে।

ক্যান্সার সচেতনায় প্রতিবছর ১৩ অক্টোবর পালন করা হয় নো ব্রা ডে। আমাদের লজ্জা বেশি তাই হয়তো আমাদের নারীরা ব্রা ব্যবহারের এই প্রবণতা থেকে বেরিয়ে আসতে পারবেন না। কিংবা বেরিয়ে আসতে পারলেও সময় লাগবে অনির্দিষ্ট বছর।

কিন্তু বছরের একটা দিন নারীরা ব্রা ব্যবহারে নিশ্চয় সচেতন হতে পারেন চাইলে। অন্তত একটা দিন নারী ব্রা ব্যবহার বন্ধ করুক। নিজে বাঁচার জন্য, অন্যকে সচেতন করার জন্য। মনে রাখুন, ব্রা কিন্তু স্তন ক্যান্সার তৈরি করার কারণগুলোর একটি।

Loading...
advertisement
সর্বশেষ সংবাদ
এ বিভাগের সর্বশেষ