এইমাত্র পাওয়া

  • কাপ জিতেই ছাড়ব, জন্মদিনে শপথ মেসির
  • প্রাথমিকে ১২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি জুলাইয়ে, থাকছে ৬০% নারী কোটা
  • ঝালকাঠিতে সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন ধ্রুবতারা’র দোয়া ও ইফতার অনুষ্ঠান
  • ঝিনাইদহে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সেমিনার
  • দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে
  • ফাঁটা পায়ের যত্নে কিছু পরামর্শ !!
  • ডায়াবেটিস রোগীরা কি রোজা রাখতে পারবে?
  • ওজন কমাবে কালো জিরা
  • হলুদ দাঁতের সমস্যা সমাধান করুন নিমিষেই
  • কিশিমিশের পানি খেলে যে উপকার পাবেন
Updated

খবর লাইভ

কেন বন্ধ হল ‘রাখী বন্ধন’-এর শ্যুটিং

10 November 2017 16:36:55 1582225582 ভোট:5/5 6 Comments
Star ActiveStar ActiveStar ActiveStar ActiveStar Active
কেন বন্ধ হল ‘রাখী বন্ধন’-এর শ্যুটিং

গত কয়েকদিন ধরেই ডুয়ার্সে জনপ্রিয় এই বাংলা সিরিয়ালের শ্যুটিং চলছিল। গত ৮ নভেম্বর সামসিংয়ে সিরিয়ালের শ্যুটিং হয়।

জলপাইগুড়ির ডুয়ার্সে শ্যুটিং করতে গিয়ে বিপাকে পড়ল জনপ্রিয় সিরিয়াল ‘রাখী বন্ধন’-এর ইউনিট। পুলিশি আপত্তিতে বন্ধই হয়ে গেল সিরিয়ালের শ্যুটিং।
গত কয়েকদিন ধরেই ডুয়ার্সে জনপ্রিয় এই বাংলা সিরিয়ালের শ্যুটিং চলছিল। গত ৮ নভেম্বর সামসিংয়ে সিরিয়ালের শ্যুটিং হয়। তার জন্য মেটেলি থানা থেকে লিখিত অনুমতি নেওয়া হয়েছিল।
চালসায় শ্যুটিংয়ের সময়ই বিপত্তির সূত্রপাত। বৃহস্পতিবার রাতে একটি বেসরকারি রিসর্টের ভিতরে মেটেলি থানার পুলিশ শ্যুটিং বন্ধ করে দেয় বলে অভিযোগ। পুলিশের অভিযোগ, চালসায় শ্যুটিংয়ের জন্য সিরিয়াল নির্মাতাদের পক্ষ থেকে কোনও পুলিশি অনুমতি নেওয়া হয়নি।

চালসায় শ্যুটিংয়ের জন্যও মেটেলি থানারই অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন ছিল। শ্যুটিং ইউনিট সূত্রের খবর, তাঁরা ভেবেছিলেন আগের দিনের শ্যুটিংয়ের জন্য যেহেতু মেটেলি থানারই অনুমতি নেওয়া হয়েছিল, তাই এ দিন আর নতুন করে অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন নেই।

‘রাখী বন্ধন’ সিরিয়ালের মুখ্য দুই শিশুশিল্পী কৃতিকা চক্রবর্তী (রাখী) এবং সোহন বসু রায় চৌধুরীও (বন্ধন) ইউনিটের সঙ্গে ছিল। সব মিলিয়ে প্রায় ষাট জনের একটি দল শ্যুটিং ইউনিটে ছিল। বাধ্য হয়ে চালসার শ্যুটিং বন্ধ করে গোটা ইউনিট কালিম্পঙের গোরুবাথানের উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে যায়। সেখানেও সিরিয়ালের শ্যুটিং হওয়ার কথা। তার আগে অবশ্য এ দিন সকালে মাল এলাকায় সিরিয়ালের কিছুটা শ্যুটিং হয়।

কিন্তু এই ঘটনায় যে তাঁরা হতাশ, তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন পরিচালক সীমান্ত বন্দ্যোপাধ্যায়-সহ গোটা শ্যুটিং ইউনিট। একদিন শ্যুটিং বন্ধ থাকায় কয়েক লক্ষ টাকা ক্ষতি হল বলে দাবি করেছেন প্রযোজক সংস্থা সিনে সলিউশনের বাবলু বন্দ্যোপাধ্যায় ও সৈকত কুণ্ডু। তাঁদের দাবি, পুলিশকে অনুরোধ করা হলেও তারা অনড়ই থাকে। সিরিয়ালের চিত্রনাট্য অনুযায়ী গোটা শ্যুটিংয়ের পরিকল্পনা করা হয়েছিল। পুলিশের আপত্তিতে তা ভেস্তে গেল। প্রযোজনা সংস্থার ওই দুই কর্তার দাবি, দার্জিলিঙের পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়ায় তাঁরা ডুয়ার্সে এসেছিলেন। কিন্তু সেখান থেকেও তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে ফিরতে হল।
পুলিশের পাল্টা দাবি, শ্যুটিং চলাকালীন কোনও বিপত্তি ঘটলে তার দায় বর্তাবে পুলিশের উপরেই। ফলে আগাম খবর না থাকায় পুলিশের তরফে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া সম্ভব হয়নি। সেই কারণেই শ্যুটিংয়ের অনুমতি দেওয়া হয়নি।

 

খবর - এবেলা ডট ইন

আপডেট 10 November 2017 16:40:58
Loading...
advertisement
সর্বশেষ সংবাদ
এ বিভাগের সর্বশেষ