এইমাত্র পাওয়া

  • কাপ জিতেই ছাড়ব, জন্মদিনে শপথ মেসির
  • প্রাথমিকে ১২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি জুলাইয়ে, থাকছে ৬০% নারী কোটা
  • ঝালকাঠিতে সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন ধ্রুবতারা’র দোয়া ও ইফতার অনুষ্ঠান
  • ঝিনাইদহে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সেমিনার
  • দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে
  • ফাঁটা পায়ের যত্নে কিছু পরামর্শ !!
  • ডায়াবেটিস রোগীরা কি রোজা রাখতে পারবে?
  • ওজন কমাবে কালো জিরা
  • হলুদ দাঁতের সমস্যা সমাধান করুন নিমিষেই
  • কিশিমিশের পানি খেলে যে উপকার পাবেন
Updated

খবর লাইভ

অশোভন আচরনের প্রতিবাদের কারনে রেস্টুরেন্ট থেকে বের করা হলো তরুণীকে

28 December 2016 02:12:59 AM 6363945 ভোট:5/5 1 Comments
Star ActiveStar ActiveStar ActiveStar ActiveStar Active
অশোভন আচরনের প্রতিবাদের কারনে রেস্টুরেন্ট থেকে বের করা হলো তরুণীকে

বড়দিনের রাত যেন ফের উসকে দিল পার্কস্ট্রিটের মোক্যাম্বো রেস্তোরাঁর ঘটনা। তবে এবার পোশাক নয়। বরং অশোভন আচরণের প্রতিবাদ করার রেস্তোরাঁ থেকে বার করে দেওয়া হল তরুণীকে ! ফেসবুকে সেই ঘটনার কথা পোস্ট করার পরই বিতর্কের ঝড় ইন্টারনেটে !
তরুণীর নাম বিজয়া দাস। ক্রিস্টমাসের রাতে পরিবারের সঙ্গে কলকাতার এক পঞ্জাবি খাবারের রেস্তোরাঁয় ডিনার করতে গিয়েছিলেন। সেখানেই এক ব্যক্তির অশোভন আচরণের প্রতিবাদ করে, ম্যানেজারের কথায় বেরিয়ে আসতে হল রেস্তোরাঁ থেকে ! আর তারপর ফেসবুকে জানালেন গোটা কাণ্ড!
বিজয়া দাস ফেসবুকে লিখলেন, ‘বড়দিনের রাতে আমি খুব খুশি ছিলাম। খুব আনন্দ হচ্ছিল। কিন্তু সেই আনন্দ খুব অল্প সময়ের মধ্যে ক্ষোভে পরিণত হল। ধন্যবাদ শের-এ-পঞ্জাব রেস্তোরাঁকে। আমি আমার গোটা পরিবারকে নিয়ে ডিনার সারতে যাই শের-এ-পঞ্জাব রেস্তোরাঁয়। ইচ্ছে ছিল পঞ্জাবি খাবার খাওয়ার। সবে মাত্র খাবার অর্ডার করেছি। হঠাৎই খেয়াল করি, উল্টোদিকের টেবিলে বসে থাকা এক ব্যক্তি খুব নোংরাভাবে আমার দিকে তাকিয়ে আছে। দেখেই মনে হচ্ছিল লোকটি মদ্যপ৷ আমি প্রথমে ব্যাপারটিকে এড়িয়ে যেতে চাই। আমার বসার জায়গা পরিবর্তন করি।
তবুও লোকটা আমার দিকে তাকিয়ে ছিল। আমি লক্ষ্য করেছিলাম, রেস্তোরাঁয় বসে থাকায় সব মেয়েদের দিকেই বাজে ভাবে তাকিয়ে ছিল মেয়েটি। আমি বেশিক্ষণ সহ্য করতে পারিনি। প্রতিবাদে চিৎকার করে উঠি। আমি রেস্তোরাঁর সামেন মহিলার পুলিশের সাহায্যও চেয়েছিলাম। কিন্তু লাভ হয়নি। কোনও সমাধান না হওয়ায়। আমি আবার চুপ করে বসে যাই। নিজের খাবার আসার অপেক্ষা করি। কিন্তু তখনই রেস্তোরাঁর ম্যানেজার এসে আমাদের রেস্তোরাঁ থেকে বেরিয়ে যেতে বলে। আমি যখন ম্যানেজারকে ব্যক্তির কথা জানাই, আমাকে উনি বলেন ব্যক্তিটিকে আমরা কীভাবে যেতে বলি৷ তার থেকে বরং আপনারাই চলে যান...

Loading...
advertisement
সর্বশেষ সংবাদ
এ বিভাগের সর্বশেষ